Saturday, 08 August 2020

চট্টগ্রাম,বাংলাদেশ।বাংলাদেশ ও বার্মা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরকালে দ্বিপক্ষীয় সহযোগীতা ও বিনিয়োগ সংরক্ষন চুক্তি করবেন জানান একজন সরকারী কর্মকর্তা।
"বার্মাতে প্রায় ৮ বছর পর এখন বাংলাদেশী সরকারী কর্মকর্তা পর্দাপন করবেন।তিনি মিয়ানমার সরকারের আমন্ত্রনে সেখানে যাচ্ছেন এবং মিয়ানমারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উন্না মং তাকে বরণ করে নিবেন।"
প্রধানমন্ত্রীর সাথে ৯০ সদস্যের প্রতিনিধি দল যাচ্ছেন যেখানে ৩৮ জন ব্যবসায়ী,৬ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি,১২ জনের নিরাপত্তা বাহিনী ও ৭ জনের একটি প্রেস টিম।
বাংলাদেশ বানিজ্য মন্ত্রী ফারুক খান বলেন,"তিনি সেখানে শক্তি ক্রয় ,যৌথভাবে বিদ্যুৎ প্রকল্প স্থাপন ও জমি লিজের ব্যাপারে কথা বলবেন ।
ঢাকা সেখানে হিমায়িত খাদ্য,প্লাস্টিক এর বস্তু,টয়লেট সামগ্রী সিমেন্ট ও ওষুধ রপ্তানী করবে।
দু দেশের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ন সম্পর্ক থাকলেও সম্প্রতি বাংলাদেশ সরকার অভিযোগ করেছে বার্মিজ সরকার জোরপূর্বক সংখ্যালগুদের এখানে আসতে বাধ্য করছে/
বাংলাদেশ চাচ্ছে যাতে তারা ২৮০০০ নিবন্ধনকৃত শরনার্থীদের ফিরিয়ে নেয়।
এছাড়া ৩০০০০০ রোহিঙ্গা পালিয়ে এসেছে বিভিন্ন সময়ে ও স্থানীয় জনগণের সাথে মিশে গিয়েছে।
বার্মিজ সরকার তাদের ফেরত নিতে চাইলেও কেউ যেতে রাজি হয় নি জানায় ডেইলি সান।
সরকারী সুত্র জানান প্রায় ৫ লাখ রোহিঙ্গা অর্থনৈতিক কারণে এখানে এসেছে কিন্তু ইউএনএইচসিআর ,ইইউ তাদের শরনার্থী মর্যাদা দিতে বলেছে।
এছাড়া গ্যাস ব্লক নিয়েও উত্তেজনা বিরাজ করছে।
শেখ হাসিনা ৯ তারিখ ফেরত আসবেন।