মংডূ,আরাকান। পুলিশ চারজন রোহিঙ্গা গ্রাম প্রশাসককে গত ১৪ এপ্রিল দুপুর দেড়টার দিকে গ্রেফতার করেছে এই
অভিযোগে তারা তংব্রু লেটওয়ে পুলিশ স্টেশন জ্বালিয়ে দিয়েছে।

উল্লেখ্য রান্না থেকে আগুনের সুত্রপাত হলেও , পুলিশ রোহিঙ্গাদের উপর তা চাপিয়ে দিয়েছে যারা উক্ত এলাকার সংখ্যা গরিষ্ঠ এবং সেখানকার গ্রাম প্রশাসকদের গ্রেফতার করেছে।
উক্ত বিল্ডিং পূর্বে ইউএনএইচসিআর স্থানীয় অফিস ছিল যা পুলিশ ব্যবহার করছে বলে জানান হামিদ।
পুলিশ কর্মকর্তারা সেখানে গিয়ে উক্ত আগুনের জন্য রোহিঙ্গাদের দায়ী করে, পুলিশ ৪ জন রোহিঙ্গাকে দায়ী
করেছে যারা সম্প্রতি গ্রাম প্রশাসক হিসেবে কাজ করছে এবং সদস্য হিসেবে বলে জানান হারুন নামের একজন
ব্যবসায়ী।
উক্ত রোহিঙ্গারা হলেন, ১ নং ওয়ার্ডের প্রশাসক নুর হাসান, ২ নং ওয়ার্ডের প্রশাসক আব্দুল্লাহ, ৫ নং ওয়ার্ডের
প্রশাসক দিদার আহমেদ ও দুই নং ওয়ার্ডের একজন সদস্য আব্দুল করিম।
রোহিঙ্গা অফিসারদের আটক করে পুলিশ স্টেশনে মারধোর করা হয় এবং একজন মারাত্বকভাবে আহত হন।
পুলিশ তাদের চিকিৎসা দেয় নি এবং এটি মানবাধিকার লঙ্ঘন এর মত গুরুতর অপরাধ।
উক্ত পরিবারের সদস্যরা তাদের জন্য চিন্তায় পড়েন কারণ তাদেরকে কেউ দেখা করতে দেয় নি।
যখন সরকার তাদের উপর এই অভিযোগ দিয়েছে সে জন্য সম্ভবত কোন গোপন  পরিকল্পনা আছে।
হয়তবা রোহিঙ্গারা অস্বীকার করেছে যে, তারা রোহিঙ্গা ছাড়া আদমশুমারীতে অংশ নিবে না যদি না তাদের
রোহিঙ্গা পরিচয় দিতে মানা করা হয়।