Thursday, 27 July 2017

টেকনাফ,বাংলাদেশ।একদল পুলিশ ৬০ বস্তা চাল ও অন্যান্য সামগ্রী ,যেগুলো রোহিঙ্গাদের প্রদান করার
জন্য জমা করা হয়েছিল,সেগুলো তাদের হেফাজতে নিয়েছে।রোহিঙ্গাদের মধ্যে অনেকে সামলাপুর গ্রামে বাস

করছে যেখানে এগুলো পুলিশ আটক করে গত সাত সেপ্টেম্বর বলে জানান হুসেইন নামের একজন নেতা।
খবরের সুত্র ধরে ,সামলাপুর পুলিশ ক্যাম্পের এক দল সদস্য একজন স্থানীয় ব্যবসায়ীর ঘর থেকে সেগুলো উদ্ধার
করে সেইদিন রাত আটটার দিকে এবং এইগুলো একটি সংস্থা জমা করেছিল বলে জানান একজন পুলিশ
কর্মকর্তা।
পুলিশ এর সুত্র অনুযায়ী,উক্ত ত্রান একজন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আজিজ উদ্দিন এর দান করার
কথা ছিল রোহিঙ্গাদের মাঝে।
সুত্র আরো জানায়,অনেক রোহিঙ্গা শরনার্থী সামলাপুরে অবৈধভাবে বাস করছেন এবং তাদের অবস্থা শোচনীয়।
তারা সরকার বা ইউএনএইচসিআর থেকে কোন সাহায্য পায় না।
সম্প্রতি কিছু বিদেশী এনজিও রোহিঙ্গাদের ত্রান প্রদান করে যেমন-চাল,তেল,বিস্কুট,পেয়াঁজ,কাপড় প্রভৃতি
বলে জানান আব্দুল্লাহ(ছদ্মনাম) বলে একজন।
একজন স্থানীয় হারুন জানান,"রোহিঙ্গারা বাংলাদেশ পাড়ি জমাচ্ছেন নাফ নদী পাড়ি দিয়ে কারণ বার্মিজ সরকার
তাদের ধর্মীয় ও রাজনৈতিক নিপীড়ন এর স্বীকার করছে বার্মাতে।
বাংলাদেশে তারা তাদের পরিবারের সাথে অনেক সমস্যার মুখোমুখী হচ্ছেন কারণ তারা দৈনিক কাজ পান না
তাদের পরিবারের সদস্যদের মুখে খাবার দিতে।